ইসলামিক ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি

ইসলামের প্রকৃত শিক্ষা মানুষের নিকট পৌঁছানোর লক্ষ্যে লাইব্ররিটি প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৬০ সালে এটি ইসলামিক একাডেমি নামে প্রতিষ্ঠিত হয়।

hero

বাংলাদেশ সরকারের ধর্ম মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন একটি স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান। ইসলামের প্রকৃত শিক্ষা মানুষের নিকট পৌঁছানোর লক্ষ্যে লাইব্ররিটি প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৬০ সালে এটি ইসলামিক একাডেমি নামে প্রতিষ্ঠিত হয়। বিভিন্ন গুণগত মান উত্তরণের পরিক্রয়মায় বর্তমানে এটি ইসলামিক ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি নামে পরিচিতি লাভ করে।

ঠিকানা ও অবস্থান:  

বায়তুল মুকাররম, ঢাকা-১০০০, টেলিফোন: ৮৮০২-৯৫৫৬৭২২, ৭১১৪৯৯৩ এক্সটেনশন: ১০৪, মোবাইল: ০১৮১৮-৭২৬৮৮৫, ০১৬৭০-০৩৯৪৭৯, ফ্যাক্স: ০২-৭১১৫৮৮৯, ইমেইল: mobin@ifclibrary.com, ওয়েব সাইট: www.ifclibrary.com

ঢাকার গুলিস্তানে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ কমপ্লেক্স ভবনের ৫ম তলায় এটি অবস্থিত। এর পাশেই রয়েছে দৈনিক বাংলা মোড়, বাংলাদেশ সচিবালয়, ঐতিহাসিক পল্টন ময়দান, মতিঝিল-দিলকুশা সংযোগ সড়ক, নগরভবন, ওসমানি উদ্যান এবং গুলিস্তান মাজার।

 এখনে প্রাপ্ত বইয়ের বিবরণ:

এটি বাংলাদেশের বৃহত্তম ইসলামিক পাবলিক লাইব্ররি। প্রতিষ্ঠাবর্ষে সীমিত সংখ্যক বই নিয়ে এর অগ্রযাত্রা শুরু হয়। বর্তমানে এর বইয়ের সংগ্রহ অনেক। এখানে কোরআন, হাদিস, ফিকাহ, তাফসির, আইনের উদ্ধৃতি, আইনশাস্ত্র, ইসলামী দর্শন, ইসলামের ইতিহাস, অর্থনীতি, রাজনীতি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান এবং শিশুতোষ বইয়ের অজস্র সংগ্রহ রয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন বিষয়ের উপর লিখিত প্রবন্ধ, গবেষণাধর্মী বই, সমাজ বিজ্ঞান এবং সাংস্কৃতিকধর্মী বই রয়েছে। এখানে রয়েছে ইসলামের তৃতীয় খলিফা হযরত উসমান (রা:) এর হস্তলিখিত কোরআন শরীফের অনুলিপি বই। অন্ধদের পড়ার সুবিধার্থে এখান Braille এ লিখিত কোরআন শরিফ রয়েছে এখানে। এখানে বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক পত্রিকা, দেশী-বিদেশী ম্যাগাজিন, সাময়িকী রয়েছে। অফিসিয়াল ওয়েব সাইটের তথ্য অনুসারে ২০০৬ পর্যন্ত এখানে বিভিন্ন বইয়ের সংখ্যা নিম্নরুপ:

  • ২০০৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত এখানে মোট বইয়ের সংখ্যা ৯৮,৪৮৫ কপি।
  • ২০০৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত এখানে ক্ষুদ্র পুস্তকের সংখ্যা ৭,৫৮৭ কপি।
  • ২০০৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত এখানে জার্নালের সংখ্যা ১,৪৪,০০০ কপি।

পাঠক: 

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ-পূর্ব কোণে একটি সুপ্রশস্ত নতুন ভবনে ইসলামিক ফাউন্ডেশন লাইব্রেরি। দোতলা, তিনতলা ও চারতলাজুড়ে বিস্তৃত পাঠকক্ষ। দোতলার পাঠকক্ষটির একদিকে বাংলা বই, আরেকদিকে ইংরেজি। তিনতলায় আরবি-ফারসি ভাষার বই। আর চারতলায় রয়েছে সংবাদপত্র পাঠকক্ষ ও অন্যান্য বই। 

জ্ঞানের অন্বেষণে এখানে লেখক, শিক্ষক, অধ্যাপক, গবেষক, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ সাধারন মানুষ বই পড়তে আসেন। ২০০৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত এখানে আগত মোট পাঠকের সংখ্যা ১,৬০,০০০। ২০০৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত এখানে আগত মোট গবেষকের সংখ্যা ৭,৫৮৭। এখানে পুরুষদের পাশাপাশি মহিলারা এসে বই পড়তে পারেন। এখানে শিশুদের ও প্রতিবন্ধীদের জন্য সমৃদ্ধ পৃথক কর্নার আছে।

লাইব্রেরির নিয়ম-কানুন:

লাইব্রেরিটি সকল শ্রেণির পাঠকের জন্য উন্মুক্ত। লাইব্রেরিতে বইগুলো উন্মুক্ত অবস্থায় সেলফে সাজানো থাকে। তাই সাধারন পাঠকরা সেলফ থেকে পছন্দমতো বই সংগ্রহ করতে পারে। বই লাইব্রেরির বাহিরে নিয়ে যাওয়া যায় না। পূর্বে লাইব্রেরি মেম্বার হওয়া সাপেক্ষে বই লাইব্রেরির বাহিরে নিয়ে যাওয়া যেত। বিভিন্ন কারণে কর্তৃপক্ষ এই বিধান বাতিল করেছেন।

সেলফ, টেবিল এবং চেয়ার: 

  • মোট টেবিল সংখ্যা ৫০টি।
  • মোট চেয়ার সংখ্যা ২০০টি।
  • মোট সেলফের সংখ্যা ২৫০টি।

খোলা ও বন্ধের সময়সূচি: 

শনিবার এটি বন্ধ থাকে। সোমবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এটি সকাল ১০টা থেকে রাত ৮.৩০টা পর্যন্ত এটি খোলা থাকে। শুক্রবার এবং রবিবার এটি সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

 

টয়লেট ব্যবস্থা: 

লাইব্রেরিটি কমপ্লেক্স ভবনের ৪র্থ তলা এবং ৫ম তলা জুড়ে বিধায় দুটি ফ্লোরেই পর্যাপ্ত টয়লেট রয়েছে। এখানে মহিলাদের জন্য পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।

জরুরি বিদ্যুৎ এবং শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা: 

এখানে লোডশেডিংয়ের সময় জরুরি বিদ্যুৎ সরবরাহের ব্যবস্থা নেই। লাইব্রেরিটি এসিযুক্ত নয়।

 

গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা: 

এখানে গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য নিজস্ব পার্কিং ব্যবস্থা রয়েছে। তবে পার্কিং প্লেসটি ইসলামিক ফাউন্ডেশনের নিজস্ব গাড়ি পার্কিং করতে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। এখানে ৮-১০টি গাড়ি পার্ক করা যায়।

 

নিরাপত্তা ব্যবস্থা: 

লাইব্রেরিটির নিরাপত্তার জন্য সিসি ক্যামেরা রয়েছে। এছাড়া এখানে সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে।

তথ্যসূত্র: 

 

Category: Library

Tags: Library

Share with others